Avatar

উদ্ভট

nivedita ghosh marjit

দলটার নাম “ সবাই রাজা”। বেশ কিছু কবি-সাহিত্যিক, চিত্রকর, মাতাল আর সর্বদা কাঠি করা কিছু ফিচেল সারাদিন হোয়াটস আপএ গজর গজর করে। মাঝে মাঝে উচ্চস্তরের খাদ্য পানীয় নিয়ে রসেবশে থাকে।আজ তাঁদের গেট্‌টু। অমিতা, শ্রীশ, মাতাল পরাগ সিংএর সাথে দাপুটে প্রাবন্ধিক নারায়ণী মিত্র, আর কবি সৌরভ সমাদ্দার আছেন এই দলে। সৌরভবাবু আবার রাজনৈতিক শক্তিপুঞ্জের আশেপাশে সর্বদা ঘোরাঘুরি করেন। এই দলে যে ফুর্তি টা সর্বোৎকৃষ্ট সেটা হল- অন্তু, কবি অন্তু দাস।সে কি করে কেউ ঠিক করে জানে না। কেবল কি এক অদ্ভুত কারণে অনেক বড় পত্রিকার তার কবিতাও ছাপা হয়। শ্রীশ অন্তু কে দেখে বলে ওঠে,“ কি বে কি কবিতা প্রসব করলি?”অন্তু সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে বলতে লাগলো, “ আমি হিয়ার মাঝে তোমায় দেখেছি দেখেনি তো কেউ দেখেনি তো কেউ কেবল ভোর বেলা দোর খুলে মেহের আলী ফিস ফিস করে” অমিতার বিরক্ত লাগছিল, সেলফি তুলতে তুলতে সে বলে উঠল, “ হ্যাঁ রে অন্তু ভ্যালেন্টাইনডে তে তোর বৌ এসেছিল?” বৌ অন্তুর সাথে থাকে না। মাঝে মাঝে দেখা করে যায়। “ আমি মালাই চিকেন রেঁধেছিলাম” অন্তু বলে। সৌরভবাবু জিজ্ঞেস করলেন “তোর তখন নিজেকে কি মনে হচ্ছিল?” অন্তুর একটা বিশেষ সমস্যা আছে। ও নিজেকে নানান ভাবে দেখতে পায়। যখন প্রথম মাইনে বাড়ল তখন মালিকের সামনে ওর নাকি একটা লেজ বার হয়েছিল। ও সেটা টুকটুক করে নাড়ছিল।সেটা নাকি সব্বাই দেখেছে। অমিতা জিজ্ঞেস করলো , “তোর বৌ এলে কি পুস্প বৃষ্টি হচ্ছিল নাকি রে অন্তু ?”অন্তু এক লাফে সবার মাঝ খানে বসে পরে , “ এবার সত্যি হল। বৌ যখন খাওয়ার পর আঙুল চাটছিল তখন আমি পরিস্কার দেখলাম আমার হাতে শাঁখা পলা, বাম হাতে নোয়া।” আমার বৌ অবাক হয়ে আমার হাত আর কপালের দিকে তাকাচ্ছিল। হাসির ফুলঝুরি ছড়িয়ে পড়ল। এরমধ্যে টিভি খুলতে হল। সরকার থেকে একটা দলকে জাপান পাঠানো হবে। সৌরভ সমাদ্দার , নারায়ণী দত্তের সেই দলে থাকবার প্রবল সম্ভাবনা আছে। টিভির সঞ্চালিকা নানান খবরের মধ্যে এই খবরটাও দিলেন। কারোর নাম নেই। কিন্তু সব্বাই কে অবাক করে জানালেন নবীন কবি অন্তুদাস এই দলের সাথে জাপান যাবে। সব চুপ। কিছুক্ষণ পর সৌরভবাবু খুব কদর্য একটা গালি দিয়ে উঠলেন। নারায়ণী দত্তের মুখ রাগে লাল। অন্তু দাঁত বার করে বলল , “ঐ দ্যাখো আবার হচ্ছে। বলছি না ওটা আমার হয়” অমিতা কাষ্ঠহাসি দিয়ে বলল, “নিজেকে গুরুদেব মনে হচ্ছে?” “না না আমার নিজেকে ট্রাক মনে হচ্ছে”,বলে নিজের পিঠের জামা উঠিয়ে দ্যায় অন্তু। কালো পিঠে সাদা দিয়ে লেখা ফুটে উঠেছে, - দেখবি আর জ্বলবি, লুচির মত ফুলবি।

Click Here Clap

No. of Clap : 1

Total Comments:2

Please Login to give comment

Avatar

Partha Ray

August 28th, 2019 at 05:14 PM

বেশ মজাদার লেখা

Avatar

SANJIB KUMAR SINHA

August 28th, 2019 at 03:47 PM

উপভোগ করলাম, ভালোই।

SANJIB KUMAR SINHA